নানা গুনের বরবটি

বরবটি একটি জনপ্রিয় সবজি। ভর্তা, ভাজি, ঝোল, নুডলস- পাস্তার সঙ্গে, নানাভাবে খাওয়া যায় এই সুস্বাদু সবজিটি। সবুজ এই সবজিতে রয়েছে বিভিন্ন পুষ্টি উপাদান। রয়েছে নানা উপকারিতা। চলুন, জেনে নিই-

পুষ্টিমান
খাদ্যোপযোগী প্রতি ১০০ গ্রাম বরবটিতে রয়েছে জলীয় অংশ ৮৭.৫ গ্রাম, আমিষ ৩.০, শর্করা ৯.০, মোট খনিজ পদার্থ ০.৮ গ্রাম, ক্যালসিয়াম ৩৩ মিলিগ্রাম, আয়রন ৫.৯, ভিটামিন বি-১ ০.১৪, ভিটামিন বি-২ ০.৩০ মিলিগ্রাম, ভিটামিন সি খুব অল্প, খাদ্যশক্তি ১৮ ক্যালরি। বরবটির জাত ও স্থানের পরিবর্তনের সঙ্গে পুষ্টিমানের পরিবর্তন হতে পারে।

স্বাস্থ্য উপকারিতা
বরবটি সমৃদ্ধ ফ্ল্যাভোনয়েড নামে এ্যান্টিঅক্সিডেন্টে। এই উপাদান ক্যানসার কোষ বৃদ্ধিরোধ করতে চমৎকার কাজ করে।

এতে থাকা ভিটামিন কে আপনার অস্টিওআর্থারাইটিস সমস্যা থেকে অস্থিসন্ধির যত্ন নেয়। দেহে রক্ত জমাট বাঁধতেও ভিটামিন কে- এর ভূমিকা অনেক বেশি।

বরবটিতে রয়েছে প্রচুর উপকারি খাদ্যআঁশ। খাদ্যআঁশ শরীরের ক্ষতিকারক এলডিএল কোলেস্টেরলের পরিমান কমিয়ে দেয়। ফলে হার্টের সুরক্ষা নিশ্চিত হয়। এছাড়াও এটি উচ্চ রক্তচাপ, বুক জ্বালাপোড়া প্রভৃতি সমস্যা দূর করতে ভূমিকা রাখে।

বরবটিতে থাকা সিলিকন হাড়ের ঘনত্ব বৃদ্ধি করে। হাড় শক্ত করতে প্রয়োজনীয় ক্যালসিয়াম পাওয়া যায় বরবটির বীজে।

ভিটামিন সি শরীরের জন্য প্রয়োজনীয় আয়রন পরিশোষণে ভূমিকা রাখে। সালাদে কাঁচা বরবটি খেলে তা থেকে প্রচুর ভিটামিন সি পাওয়া যায়। তাছাড়া বরবটিতেও রয়েছে যথেষ্ট পরিমাণ আয়রন। যা আপনার শরীরের আয়রনের ঘাটতি পূরণ করতে পারবে।

কম ক্যালরিযুক্ত খাদ্য ও ফ্যাট-কোলেস্টেরল না থাকায় বরবটি পেট ভরে খাওয়া যায়। এতে ক্ষুধাভাব কম হয়। ওজন হ্রাসে সহায়তা করে।