আনন্দ-বেদনার র‌্যাগ উৎসব

মাহিদুল ইসলাম মাহি, জাবি

12112183_10207156846814910_1569155958482612612_nজাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ৩৮তম ব্যাচ শিক্ষা সমাপনী উৎসব (র‌্যাগ) ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে শেষ করলেও শিক্ষার্থীদের মাঝে ভিতরের কষ্টও কম ছিল না। কেননা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাথে ৭ বছরের সম্পর্ক লিখিতভাবেই শেষ হয়েছে র‌্যাগ উৎসবের মধ্য দিয়ে। তাই তো অনেকের চোখে মুখে ছিল বেদনার ছাপ। সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম ফেসবুকে ৩৮ তম ব্যাচের অনেকেই আবেগ প্রবণ স্ট্যাটাস শেয়ার করেছেন। র‌্যাগ নিয়ে আয়োজক কমিটির প্রতি ক্ষোভও কম ছিল না। র‌্যাগ উৎসবে গঠিত কমিটির আহ্বায়ক আসাদুজ্জামান নুহাশ হঠাৎ করেই অনুষ্ঠান শুরুর কয়েকদিন আগে উধাও হওয়ায় র‌্যাগ না হওয়ার উপক্রম হয়েছিল। তবে পিছিয়ে না থেকে নতুন করে আহ্বায়ক আর কোষাধ্যক্ষকে বাইরে রেখেই কার্যক্রম শুরু করে। র‌্যাগ রাজা শিহাব শাওন, রানী ফারিবা আর নতুন করে বিভিন্ন হলের শিক্ষার্থীদের নিয়ে ৭ দিনের পরিশ্রমে জমকালো র‌্যাগ আয়োজন করে।

12115591_10207156839014715_3479267627035228025_nআফম কামাল উদ্দিন হলের মোছাদ্দেক, জাহিন, পার্থ, ইসাক, ভাসানী হলের মুরশিদ, হুমায়ুন,বিজু, বেলাল, বঙ্গবন্ধু হলের বিপুল, নিরব, এম এইচ হলের রাহাত,  রাহুল, আলবেরুনী হলের কাইজার, সালাম বরকত হলের, অনিক, রাব্বি, সৌমিত্র সহ আরো অনেকের কঠোর পরিশ্রমের কারণেই জেমস ৩৮ ব্যাচের র‌্যাগে পারফর্ম করেছে। ক্যাম্পাসের সুন্দর একটি র‌্যাগ উৎসব করেছে। গত রোববার রাতে জেমসের কনসার্টের আগ মুহূর্তে সমাপনী দিনে বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রাজিব আহমেদ রাসেল, সভাপতি মাহমুদুর রহমান জনি, জাবি প্রক্টর অধ্যাপক তপন কুমার, প্রোভিসি অধ্যাপক আবুল হোসেন উপস্থিত ছিলেন।