মেসির জাদু, লিভারপুলকে উড়িয়ে দিলো বার্সা

স্পোর্টস ডেস্ক, ২ মে : সেই মেসি ম্যাজিকেই ঝলসে গেল লিভারপুল। লিওনেল মেসির জোড়া গোলের সৌজন্যে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সেমিফাইনালের প্রথম লেগে লিভারপুলকে ৩-০ পর্যুদস্ত করল বার্সেলোনা। বার্সার হয়ে নিজের ৬০০তম গোলও এই ম্যাচেই করলেন এলএম টেন।

বুধবার ন্যু ক্যাম্পের ম্যাচ ঘিরে টানটান উত্তেজনা তৈরি হয়েছিল আগেই। প্রথমার্ধে খেলা শুরুর পরে বার্সাকে যথেষ্ট চাপে রাখে সালাহ ও মালের তীব্র গতি। স্প্যানিশ ডিফেন্সকে তছনছ করে বারবার গোলের সুযোগ তৈরি করতে থাকে এই জুটি। চাপের মুখে সালহাকে মৃদু চ্যালেঞ্জ করে বক্সের ভিতরে ফেলে দেন অ্যালবা। অন্য দিকে একের পর এক ভুল পাসে সমর্থকদের মেরুদণ্ডে শীতল স্রোত বইয়ে দেন পিকে। আর মানের ক্ষিপ্র গতির সামনে হিমশিম খেতে থাকেন সার্জিও রবের্তো।

২৬ মিনিটের মাথায় গোল করে বার্সলোনাকে এগিয়ে দেন লুই সুয়ারেজ।

বিপক্ষের বক্সে একাধিক সুযোগ তৈরি করেও কিন্তু কাজের কাজটি করতে বিফল হয় লিভারপুল। এদিকে ২৬ মিনিটের মাথায় গোল করে বার্সলোনাকে এগিয়ে দেন লুই সুয়ারেজ। দ্বিতিয়ার্ধের প্রথম কয়েক মিনিট সমতা ফেরাতে চাপ বাড়াতে শুরু করে লিভারপুল। বস্তুত এদিন ম্যাচের সিংহভাগই আক্রমণ করে গিয়েছে লিভারপুল। বিপক্ষের গোলের সামনে দু’টি ভালো সুযোগও তারা তৈরি করে ফেলে। মোহাম্মদ সালাহর জোরালো কিক বারপোস্টে লেগে ফিরে না এলে হয়তো মনোবল ফিরে পেত ইংরেজ দল।

তবে এরপরেই পালটা আক্রমণ শানাতে শুরু করে বার্সা। বিপক্ষের যাবতীয় প্রচেষ্টাকে হেলায় নিষ্প্রভ করে অসামান্য স্কিল প্রদর্শনের মাধ্যমে নিজেকে উজাড় করে দেন মেসি। একক দৌড়ে ব্রিটিশ ডিফেন্স ভেদ করার দায়িত্ব যেন একাই কাঁধে তুলে নিয়েছিলেন তিনি।

খেলা শেষ হওয়ার ১৫ মিনিট আগে সুয়ারেজের ভলি পোস্টে লেগে সোজাসুজি মেসির পায়ে এসে পড়ে। রিবাউন্ড থেকে গোল করতে দেরি করেননি আর্জেন্তিনীয় তারকা। ৮২ মিনিটে দুর্দান্ত কার্ভিং ফ্রি কিক থেকে ম্যাচের তৃতীয় এবং দলের হয়ে নিজের ৬০০ তম গোলটিও করেন সেই লিও মেসিই।