তাপস পালের বিদায়

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের জনপ্রিয় অভিনেতা তাপস পাল আর নেই। আজ ১৮ ফেব্রুয়ারি, মঙ্গলবার ভোরে মুম্বাইয়ের একটি বেসরকারি হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তৃণমূল কংগ্রেসের এই সাংসদ। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৬১ বছর। 

মাত্র ২২ বছর বয়সে ১৯৮০ সালে চলচ্চিত্র অঙ্গনে পা রাখেন এ অভিনেতা। তার প্রথম সিনেমা ‘দাদার কীর্তি’ মুক্তি পায় একই বছরে। এরপর দর্শকদের উপহার দিয়েছেন একের পর এক জনপ্রিয় চলচ্চিত্র।

শৈশব থেকেই অভিনয়ের প্রতি ঝোঁক ছিল তাপসের। যে কারণে খুবই অল্প বয়সে সাফল্যও লাভ করেন চলচ্চিত্রে। তার অভিনীত উল্লেখযোগ্য সিনেমার মধ্যে রয়েছে- ‘সাহেব’, ‘অনুরাগের ছোঁয়া’, ‘পারাবত প্রিয়া’, ‘ভালোবাসা ভালোবাসা’, মায়া মমতা’, ‘সুরের ভুবনে’, ‘সমাপ্তি’, ‘চোখের আলো’, ‘অন্তরঙ্গ’ ইত্যাদি।

বাংলা চলচ্চিত্র ছাড়াও বলিউডের হিন্দি সিনেমায়ও অভিনয় করেছেন তাপস পাল। ‘অবোধ’ নামের সেই সিনেমায় তার বিপরীতে ছিলেন মাধুরী দীক্ষিত।

শুধু অভিনয় নয় রাজনীতিতেও সক্রিয় ছিলেন তাপস পাল। ২০০৯ সালে ভারতের সাধারণ নির্বাচনে তৃণমূল কংগ্রেসের হয়ে কৃষ্ণনগর থেকে এমপি নির্বাচিত হন তিনি।

২০১৪ সালে কেন্দ্রীয় সরকার নির্বাচনের কিছু দিন আগে একটি নির্বাচনী প্রচার সভায় বক্তৃতা দিতে গিয়ে বিতর্কে জড়িয়ে পড়েন তাপস পাল। আর ২০১৬ সালের শেষের দিকে রোজভ্যালি নামে একটি চিটফান্ডের সঙ্গে যুক্ত থাকার অভিযোগে গ্রেপ্তারও হন তিনি।