চলতি বছরে আলোড়ন তুলবে যেসব প্রযুক্তি

মৃন্ময়ী মোহনা: বিগত কয়েক শতকে পৃথিবীর প্রযুক্তিখাতে অভূতপূর্ব উন্নয়ন সাধিত হয়েছে। প্রযুক্তির এই মহাযজ্ঞ সময়ের সাথে আরও বাড়বে বৈ কমবে না। এরই ধারাবাহিকতায় ২০২০ সালেও আসবে নতুন নতুন প্রযুক্তি। এ বছর আলোড়ন তুলবে এমন পাঁচটি প্রযুক্তি নিয়েই আজকের আয়োজন।

কোয়ান্টাম কম্পিউটার: কোয়ান্টাম কম্পিউটারের বিপ্লব ঘটতে চলেছে ২০২০ সালে। গেল বছরের অক্টোবরে গুগল ঘোষণা করে, তাদের তৈরি করা কোয়ান্টাম কম্পিউটার একটি কাজ ২০০ সেকেন্ডে করেছে, যে কাজটি সুপার কম্পিউটার করতে গেলে ১০০০০ বছর লাগতো! তাদের এ দাবি নিয়ে অনেক প্রশ্ন ও বিতর্ক সৃষ্টি হলেও গুগল জানায় এ বছরই বাজারে আসবে এই কোয়ান্টাম কম্পিউটার। আর তাদের এ কথা যদি সত্যি হয় তাহলে প্রযুক্তিখাত বিশেষ করে, ইঞ্জিনিয়ারিং, কেমিস্ট্রি এবং ফার্মাসিউটিক্যালস খাতে রীতিমতো বিপ্লব সাধিত হবে।

৫ জি ডেটা নেটওয়ার্ক: ২০১৯ সালে ৫ জি নেটওয়ার্ক ব্যবহারের সূচনা হলেও তা সবার সাধ্যের মধ্যে ছিলো না। ২০২০ সালে উপযোগিতা বৃদ্ধির সাথে সাথে সুলভেও মিলবে এই ৫ জি সেবা। পৃথিবীর ২২ টি দেশের ৪০ টি কোম্পানি তাদের নেটওয়ার্ক ৫ জি তে উন্নীত করছে। এর মাধ্যমে আপলোড ডাউনলোডের গতি বৃদ্ধি পাওয়া সহ আরও অনেক সুবিধা পাওয়া যাবে যা হবে কল্পনাতীত। এমনটাই প্রত্যাশা নেটওয়ার্ক কোম্পানিগুলোর। এছাড়া এই বর্ধিঞ্চু Bandwidth এর মাধ্যমে রোবট, মেশিন সহ আর্টিফিশিয়াল ইনটেলিজেন্সের গতিও বৃদ্ধি পাবে।

অটোনোমাস ড্রাইভিং: বিগত বছরগুলোতে যাতায়াত খাতে অভূতপূর্ব পরিবর্তন এসেছে। অ্যাপভিত্তিক যাতায়াত সেবার পর ২০২০ সালে আসছে যুগান্তকারী প্রযুক্তি Autonomous Driving System. গাড়ি চালানো থেকে শুরু করে ব্রেক কষা, বাঁক নেওয়া সবই হবে কোনো ড্রাইভার ছাড়াই। গুগলের ‘সিস্টার কোম্পানি ‘ Waymo ইতিমধ্যে ক্যালিফোর্নিয়ায় এমন স্বনিয়ন্ত্রিত ট্যাক্সির পরীক্ষামূলক চালনা করেছে, যেখানে প্রথম মাসেই ৬২০০ লোক এই স্বনিয়ন্ত্রিত গাড়ির যাত্রী হয়েছে।

মহাকাশে ভ্রমণ: কযেকবছর আগে থেকেই মহাকাশে যাত্রীদের ভ্রমণ নিয়ে বিস্তর গবেষণা শুরু হয়। ২০২০ সালে এই অসম্ভব যেন সম্ভব হতে চলেছে। রাশিয়া ও আমেরিকার বিভিন্ন কোম্পানী ইতিমধ্যেই আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনে কার্গো আনা নেওয়া করছে। এবার সৌখিন মানুষদের জন্য মহাকাশ ভ্রমণের সুযোগ তৈরি করছে কোম্পানিগুলো। মহাকাশ পর্যটনের নতুন দাঁড় উন্মোচিত হতে চলেছে এ বছরই। পৃথিবীর বহু বিলিয়নার ও ধনী ব্যক্তিরা ইতিমধ্যে চাঁদ ও অন্যান্য গ্রহে ভ্রমণের ব্যাপারে আগ্রহ প্রকাশের সাথে সাথে চুক্তিও সই করেছে।

ভাঁজ করা স্মার্টফোন: ২০১৯ সালে মোবাইল কোম্পানি স্যামসাং ভাঁজ করা স্মার্টফোন তৈরি করে তাক লাগিয়ে দিয়েছে গ্যাজেট প্রেমীদের। ২০২০ সালে এ পথে হাঁটতে শুরু করেছে মটোরোলা, টিসিএলের মতো কোম্পানি। লক্ষ লক্ষ অর্থ বিনিয়োগ করেছে এ খাতে। এ বছর প্রায় সব ধরণের গ্যাজেটেই এমন ভাঁজ করার সুবিধা থাকবে বলে আশাবাদী গ্যাজেট কোম্পানিগুলো।

Be the first to comment

Leave a comment

Your email address will not be published.


*