হাই হিলে যত ক্ষতি

ফ্যাশন সচেতন অনেকেই হাই হিল পরতে পছন্দ করেন। গবেষণায় দেখা গেছে যাদের বয়স ১৮ থেকে ২৪ বছর তারাই সবচাইতে বেশি (৪৯%) হাই হিল পরেন। তবে জানেন কি হাই হিল নিয়মিত পরলে অনেক ধরনের ক্ষতি হতে পারে?

রক্তনালী সংকোচন

হাই হিল সাধারণত একটু আঁটসাঁট ও চোখা আকৃতির হয় যাতে এটি দেখতে ফ্যাশনেবল মনে হয়। কিন্তু এই আটসাঁট হাই হিলের কারণে পায়ে থাকা রক্তনালীগুলোতে রক্তপ্রবাহ অনেকাংশে কমে যায় ফলে রক্তনালী সংকুচিত হয়ে যায়। পরবর্তীতে কিছু কিছু ক্ষেত্রে অতিরিক্ত চাপ সৃষ্টির ফলে রক্তনালী ছিঁড়ে যেতে পারে যেটি খুবই ভয়ঙ্কর।
জয়েন্টে ব্যাথা
হাই হিল পরলে স্বাভাবিকের তুলনায় উচ্চতা বেড়ে যায়। ফলে চলাচলে নানান ধরনের বিঘ্নতা সৃষ্টি হয়। কারণ উচ্চতা বাড়ার জন্য আমাদের হাঁটার যে স্বাভাবিক গতি প্রকৃতি সেটি বদলে যায়। পা একদম সোজাভাবে থাকে ফলে বাঁকানো যায় না। এইজন্য হাঁটুতে প্রচুর চাপ পড়ে এবং জয়েন্ট পেইন শুরু হয়। যেটি একবারেই কাম্য নয়। আমেরিকান অ্যাসোসিয়েশন অব অর্থোপেডিক সার্জন এর তথ্যমতে এই জয়েন্ট পেইনই ধীরে ধীরে আর্থাইটিসে রূপ নেয়।
ফোসকা পরা
পায়ের চামড়ার সাথে হিলের ঘর্ষণ ও আঁটসাঁট হওয়ার ফলে কিছুক্ষণ হাঁটার পরেই পায়ে ফোসকা পরে যেতে পারে। যেটি খুবই অস্বস্তিকর ও অনাকঙ্খিত।
ব্যাকপেইন
হাই হিল পরলে হাঁটার সময় এটি পেলভিসকে প্রভাবিত করে ফলে কোমরের উপর প্রচুর চাপ পরে। যা পরবর্তীতে ব্যাকপেইনে রূপ নেয়। অনেক সময় এই ব্যাক পেইন আবার অস্টিপোরোসিসের কারণ হয়ে দাঁড়ায়।
পায়ে ব্যথা
গবেষণা বলছে হাই হিলের আকৃতি ও গঠন আলাদা হওয়ায় কয়েকদিন পরলেই ব্যথা হতে পারে পায়ের তলা অথবা গোড়ালিতে।
মেরুদণ্ড বেঁকে যেতে পারে
গবেষণায় দেখা গেছে, প্রতিনিয়ত হাই হিল পরলে মেরুদণ্ডের আকৃতি পাল্টে বেঁকে যেতে পারে।
কীভাবে নিরাপদ হিল পছন্দ করবেন?

হাই হিলের উচ্চতা ২ ইঞ্চির মধ্যে রাখুন।
তলা সমতল এমন জুতা পছন্দ করুন।
আরামদায়ক জুতা পছন্দ করুন।
অল্প কয়েক ঘন্টার জন্য হিল জুতা পরুন।
অর্থোপেডিক প্যাড ব্যবহার করুন।
কয়েক ধরনের জুতা ঘুরিয়ে ফিরিয়ে ব্যবহার করুন।