৭৬ বছর বয়সে আবুল হায়াতের করোনা জয়

মহামারি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পর দেশবরেণ্য অভিনেতা, নাট্যকার, পরিচালক ও লেখক আবুল হায়াতকে নিয়ে খুব চিন্তায় ছিল তার পরিবার, সহকর্মী ও ভক্তরা।

তখন দেশবাসীর কাছে দোয়া চেয়েছিল পরিবার এবং অনেকে আবার সামাজিক মাধ্যমে তার আরোগ্য কামনা করে পোস্টও দিয়েছেন।

অবশেষে বর্ষীয়ান এই অভিনেতার শারীরিক অবস্থা নিয়ে সুসংবাদ এলো। ৭৬ বছর বয়সে তিনি করোনা ভাইরাসকে জয় করছেন। মঙ্গলবার আবুল হায়াতের মেয়ে অভিনেত্রী নাতাশা হায়াত বাবার করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ হওয়ার খবর জানিয়েছেন।

নাতাশা বলেন, আব্বার করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। আল্লাহর কাছে অনেক অনেক শুকরিয়া, তিনি আব্বাকে সুস্থ করে দিয়েছেন। এখন তিনি পুরোপুরি সুস্থ ও স্বাভাবিক আছেন। আব্বার জন্য সবাই দোয়া করবেন।

আরও পডুন> বাসায় ফিরেছেন আবুল হায়াত

করোনা আক্রান্ত হয়ে গত ৩১ মার্চ হাসপাতালে ভর্তি হন আবুল হায়াত। প্রথমদিকে তার শারীরিক অবস্থা বেশ জটিল ছিল। কিন্তু ধীরে ধীরে সুস্থ হয়ে ওঠায় গত ০৬ এপ্রিল তাকে বাসায় ফেরার ছাড়পত্র দেন চিকিৎসক। তবে তখন তিনি করোনা মুক্তি ছিলেন না। বাসায় চিকিৎসকের তত্ত্বাবধানে চলছিল চিকিৎসা। এরপর সম্প্রতি তিনি করোনামুক্ত হয়েছেন।

আবুল হায়াত ১৯৬৯ সাল থেকে টিভি নাটকে অভিনয় করছেন। দীর্ঘ ক্যারিয়ারে অসংখ্য নাটকের পাশাপাশি ‘আগুনের পরশমণি’, ‘জয়যাত্রা’, ‘গহীনে শব্দ’, ‘অজ্ঞাতনামা’সহ বেশ কয়েকটি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন।

‘দারুচিনি দ্বীপ’ চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য ২০০৭ সালে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন আবুল হায়াত।

গত ২৬ ডিসেম্বর তার অভিনীত সর্বশেষ ‘স্ফুলিঙ্গ’ চলচ্চিত্রটি মুক্তি পায়। করোনার মধ্যেই চলচ্চিত্রটির শুটিং করেছিলেন তিনি।