বিশ্বজুড়ে অভিশাপ দেওয়ার বিচিত্র সব রীতিনীতি!

অভিশাপ পেতে কে চায়? কিংবা সত্যিই অভিশাপে কতটা কাজ হয়? বলা হয একটা গাছকেও যদি প্রতিদিন গালমন্দ করা হয়, অভিশাপ দেওয়া হয় সেও শুকিয়ে যেতে থাকে। আর মানুষ? সেই প্রচীন কাল থেকে একের পর এক অভিশাপ দেওয়ার নিত্য-নতুন পথ বেছে এসেছে তারা। আর সেগুলোর ভেতরে কিছু অভিশাপ দেওয়ার পদ্ধতি সত্যিই বেশ মজাদার। আসুন জেনে নিই সেরকম কিছু ঐতিহ্যবাহী আর অদ্ভূত অভিশাপ দেওয়ার রীতির কথা।

১. অভিশাপের ট্যাবলেট

প্রাচীন রোমান ব্রিটেনে কাউকে অভিশাপ দেওয়ার প্রক্রিয়াটা খুব সহজ ছিল। যাকে অভিশাপ দিতে ইচ্ছে করবে তার সম্পর্কে একটি ছোট্ট পাথর কিংবা কাঠ অথবা ট্যাবলেট আকৃতির কোনকিছুতে লিখতে হবে। সে কি করেছে এবং তার কোন শাস্তি চাচ্ছে লেখক- এটা লিখে ট্যাবলেটটিকে পুঁতে ফেলতে হবে এমন কোন স্থানে যেখানটায় দেব-দেবীরা খুব সহজেই পৌঁছতে পারে। ব্যাস! হয়ে গেল অভিশাপ দেওয়া! ইংল্যান্ডের বাথ ছিল অভিশাপ দেওয়ার ভালো স্থান। আর তাই এখানটার মাটিতে পাওয়া গিয়ে কয়েকশ অভিশাপের ট্যাবলেট!

২. বাজে দৃষ্টি

অভিশাপ দিতে চাচ্ছেন কাউকে, চাচ্ছেন কারো খারাপ হোক? কিচ্ছু করতে হবেনা। শুধু যাকে অভিশাপ দিতে চাইছেন তারদিকে বাজেভাবে তাকান। হয়তো এখন অতোটা মানা হয় না। তবে প্যারিসে আগে এই অভিশাপ দেওয়ার পদ্ধতিটি ছিল বেশ জনপ্রিয়। এক্ষেত্রে কোন একটা মানুষ আপনার দিকে অনেকক্ষণ ধরে তাকিয়ে আছে দেখলেও বুঝতে হবে যে কিছু একটা ঝামেলা আছে। এভাবে অভিশাপ দিয়ে মানুষের যেকোন খারাপ অবস্থা করে দিতে পারে আরেকজন বলে মনে করা হত তখন। তবে অভিশাপ কাটানোরও ভালো একটা উপায় বের করা হয়েছিল। সেটা হচ্ছে কোন বাচ্চার মুখে থুতু ছিটানো।

৩. বইয়ের অভিশাপ

মধ্যযুগে বই ছিল খুবই মূল্যবান জিনিস। আর তাই সেটা চুরি কিংবা ধার নিয়ে ফেরত না দেওয়াটাও ছিল স্বাভাবিক। কিন্তু কি করে বন্ধ করা হল সেটা? তেরি হয়ে গেল বইয়ের অভিশাপ। এই অভিশাপের ক্ষেত্রে বই এর লেখক আর প্রকাশনার পৃষ্ঠার ওপর লেখা থাকতো ভয়ঙ্কর ভয়ঙ্কর সব অভিশাপের কথা। যে বইটা চুরি করবে বা ধার নিয়ে ফেরত দেবে না তার জন্যে পছন্দমতো দেব-দেবীকে সাক্ষী রেখে দেওয়া হত অভিশাপ! যদিও মনে হয় না বর্তমানে এটা কাজ করবে।

৪. হাড়ের অভিশাপ

অষ্ট্রেলিয়ায় বেশ বিখ্যাত এই অভিশাপ দেওয়ার পদ্ধতির ক্ষেত্রে প্রথমে একটা ধারালো হাড় নিতে হবে। তার আগায় একটা চুল এঁধে নিয়ে চুলের আরেক পাশ বেঁধে দিতে হবে অন্য একটি হাড়ে। এরপর ডাকতে হবে কোন একটা আত্মাকে। আত্মা চলে এলেই যাকে অভিশাপ দিতে চার তার দিকে হাড় তুলে ধরতে হবে এবং তাকে জানাতে হবে যে আপনি তাকে অভিশাপ দিয়েছেন। না জানলে কিন্তু এত কষ্টের কোন লাভই হবে না!

Be the first to comment

Leave a comment

Your email address will not be published.


*