কোটিপতি হতে চান? জেনে নিন কোন ৫টি ভুল আপনার পথ আগলে রেখেছে

বড় হবার সাধ কার না থাকে? লেখাপড়া শিখে অনেক অনেক টাকা আয়ের কথা একবার হলেও সবার মনে ঘুরপাক খেয়ে যায় সবার। কিন্তু সবাই-ই কি আর কোটিপতি হতে পারে? কজন মিলিয়নার মানুষ চারপাশে দেখতে পান আপনি? তার মানে এই নয় যে আপনার পাশ দিয়ে হেঁটে যাওয়া মধ্যবিত্ত ঐ মানুষটির ভেতরে দক্ষতা কিংবা প্রতিভার অভাব ছিল। তাহলে কেন সে-ও হতে পারল না আর দশজন মানুষের মতন কোটিপতি? জানতে চান? জেনে নিন খুব ছোট্ট যেই ভুলগুলোর কাণে কোটিপতি হার স্বপ্ন স্বপ্নই থেকে যায় বেশিরভাগ মানুষের জীবনে।
১. বড় কিছু না ভাবা

ভাবছেনই যখন, বড় কিছু ভাবতে সমস্যা কী! অল্প কিছু পাওয়ার চিন্তাই অনেককে বড় কিছু পাওয়া থেকে দূরে সরিয়ে দেয়। মানুষ যখন দশ পা এগোনোর কথা ভাববে, তখন দশ পা না এগোতে পারলেও পাঁচ পা তো এগোতে পারে। কিন্তু শুরুতেই যদি পাঁচ পা এগোনোর কথা মাথায় আনা হয়। তাহলে তো সেটাও তার পক্ষে সম্ভব হবেনা। আর তাই বড় কিছু করবার চিন্তা করুন। তাহলে সেটা না পেলেও কাছাকাছি কিছু পেয়ে যাবেনই!

২. বিশ্বাস না রাখা

“ আমি জানতাম আমি ধনী হব। কখনো এটা নিয়ে এক মিনিটের জন্যেও সন্দেহ হয়নি আমার। “- ওয়ারেন বাফেট। ঠিক এমনটাই বিশ্বাস রাখুন নিজের ভাবনার ওপর। ইতিবাচকভাবে চিন্তা করুন। আপনার যা করবার ইচ্ছা সেটা নিয়ে যদি আপনার মনেই সন্দেহ থাকে তাহলে অন্যরা তো সেটাকে প্রথম ধাপেই হেসে উড়িয়ে দেবে। আর তাই কেবল বড় কিছু হবার কথা না ভেবে ভাবুন সেটা আপনি পারবেনই!

৩. নিজেকে না শোনা

অন্যরা তো অনেক কথাই বলবে। কিন্তু তাদের কজনের কথা শুনবেন? আর তাই অন্যদের সমালোচনায় কান না দিয়ে নিজের মনকে শুনুন। মাঝপথে কেউ যদি সমালোচনা করে তাহলে বুঝবেন আপনি ঠিক পথেই যাচ্ছেন। নিজের কাছে যতক্ষণ পরিষ্কার থাকছে পুরো ব্যাপারটা যে আপনি ঠিক পথেই আছেন আর আপনিই পারবেন, ততক্ষণ অন্যদের কথা শোনা থেকে বিরত থাকুন। বরং একমনে কাজ করে যান।

৪. অপেক্ষা করা

অনেক মানুষই সঠিক সময়ের জন্যে অপেক্ষা করেন। কিন্তু সত্যিকারের সফলেরা কখনো সঠিক সময়ের জন্যে অপেক্ষা করেন না, বরং সব সময়কেই নিজের জন্যে সঠিক বানিয়ে নেন তারা। আর তাই এগিয়ে যান আর কাজ শুরু করে দিন। কখনো কোন নির্দেশনা আপনার জন্যে আসবে না যে এটা করে হবে। বরং এখন যদি আপনি কোন কাজ করা শুরু করেন তাহলে ভবিষ্যতে হয়তো দেখবেন এটাই সঠিক সময় ছিল। সঠিক সময় বলে অবশ্যই কিছু আছে। তবে সেটার জন্যে অপেক্ষা না করে সেটাকে তৈরি করে নিন।

৫. সঞ্চয় না করা

কতটা আপনি আয় করছেন সেটার ওপর কখনো আপনার ধনী হওয়া নির্ভর করে না। বরং সেটা নির্ভর করে কতটা আপনি জমাচ্ছেন তার ওপর। আর তাই টাকাকে ভালোবাসতে শিখুন। ভালো একটা সম্পর্ক গড়ে তুলুন। খরচ করবার সময় ভাবুন আপনি যেভাবে খরচ করছেন সেটা আপনি যা হতে চাইছেন তার ওপরেও প্রভাব ফেলবে। আর তাই সঠিক ব্যবহার করুন আপনার কষ্টার্জিত অর্থের!

Be the first to comment

Leave a comment

Your email address will not be published.


*