হলদে রূপ

শুধু রান্নার স্বাদ বাড়াতেই নয়, রূপচর্চার ক্ষেত্রেও হলুদের ব্যবহার সমান গুরুত্বপূর্ণ। ত্বকের স্বাভাবিক পর্যায় ধরে রাখার জন্য হলুদের গুণাগুণ অপরিহার্য। ত্বকের রুক্ষ্মতা থেকে বাঁচার এবং ত্বক লাবণ্যময়ী করতে অনেক উপকারি একটি ভেষজ উপাদান। চলুন জেনে নিই, হলুদ দিয়ে তৈরি কিছু প্যাক সম্পর্কে-

কাঁচা হলুদের রস, মুলতানি মাটি মিশিয়ে মুখে লাগান। প্যাক শুকিয়ে এলে গোলাপজল দিয়ে মুছে নিন।

সামান্য একটু কাঁচা হলুদ আর মধু মিশিয়ে প্যাক তৈরি করে লাগাতে পারেন।

হলুদের গুঁড়োর সাথে শসার রস অথবা লেবুস রস মিশিয়ে লাগান। ১৫ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন। দেখবেন ত্বক কতটা মসৃণ লাগে।

হলুদ বেটে সারা শরীরে স্ক্রাব হিসেবে ব্যবহার করুন। এতে ত্বকে আসবে কোমলতা।

হলুদের গুঁড়া ব্রণ প্রতিরোধ করে। হলুদ বাটা ক্ষতস্থানের ব্যথা দ্রুত কমায় এবং ঘা প্রতিরোধ করে।

দাগ বা ব্রণ দূর করতে টমেটোর রস, কাঁচা হলুদ আর মধু মিশিয়ে প্যাক তৈরি করে ত্বকে ব্যবহার করুন।

ব্রণের সমস্যা থাকলে কাঁচা হলুদের রস, মুলতানি মাটি মিশিয়ে নিমপাতার রস একসঙ্গে মিশিয়ে পেস্ট করে ত্বকে লাগান। প্যাক শুকিয়ে এলে গোলাপজল দিয়ে ম্যাসাজ করে প্যাকটি নরম করে নিন এবং পানির সাহায্যে ধুয়ে ফেলুন।

কাঁচা হলুদ, মসুরির ডাল একসাথে বেটে পেস্ট তৈরি করে মুখে লাগিয়ে ২০ মিনিট পরে ধুয়ে ফেললে ত্বক উজ্জ্বল হয়ে উঠবে।

গোসলের আগে কাঁচা হলুদ, মধু, ডিমের কুসুম ও নারিকেল তেল মিশিয়ে প্যাক তৈরি করে পুরো মুখে-গলায় লাগিয়ে রাখুন। আধঘণ্টা বাদে তুলে ঠান্ডা পানিতে মুখ ধুয়ে ফেলুন।

Be the first to comment

Leave a comment

Your email address will not be published.


*